写真

কাঁকরোলের এই নিরামিষ তরকারির স্বাদে পরিবারের সবাই মুগ্ধ হয়ে যাবে । 
আজ আমি আপনাদের মাঝে কাঁকরোল কষা নিয়ে আলোচনা করবো। এটা পেঁয়াজ রুসুন ছাড়াই বানিয়ে থাকি,তাই নিরামিষ দিনে আমার এই রেসিপি বানিয়ে দেখতে পারেন। এই কাঁকরোল কষা আমি ভাত রুটি এমনকি পরোটা দিয়েও পরিবেশন করে থাকি। আমরা অনেকেই রুটি খেতে আলু ভাজি দিয়ে খেয়ে থাকি।
তবে আমরা অন্যরকম ভাবে খেয়ে দেখতে পারি। 
কাঁকরোলের এই নিরামিষ আমার কাছে অনেক ভালো লেগেছে। এটি তৈরি করে দেখুন একটা সময়ের প্রয়োজন হয় না ‌। যেমনভাবে বাড়িতে আমরা ভালোবাসিনি তৈরি করে থাকে ঠিক তেমনি ভাবে এটি তৈরি করা হয়। 
রুটি ,পরোটা, ভাত সঙ্গে আমরা এই খাবারটি গ্রহণ করতে পারি।
আমরা ফেসবুকে, টিভি তে দেখে সাধারণ বিষয় ভেবে উড়িয়ে দিচ্ছি.... 😭😭😭

একবারও কি ভেবে দেখেছেন উপকূলীয় এলাকা সাতক্ষীরার মানুষ কত টা কষ্টে দিন পার করছে..... কি হা হা কার কেও দেখার নাই। 

মাটির ঘর পানিতে ভাসিয়ে নিয়ে যাচ্ছে, একমাত্র থাকার ঘর টুকুও থাকল না 😭😭একবার একটু ভেবে দেখেন কত টা অসহায় হয়ে যাচ্ছে।
যেখানে আপনি নিশ্চিতে ঘুমিয়ে থাকছেন সেখানে বেড়ি বাধ দেওয়ার জন্য ব্যস্ত প্রত্যেক টি মানুষ। সাতক্ষীরার মূল আয়ের উৎস চিংড়ী ঘের সেটুকুও পানিতে ভেসে গেছে তাহলে কি দিয়ে খাবে, থাকবে। সত্যি সাতক্ষীরার শ্যামনগর, কালিগঞ্জ, আশাশুনি উপজেলার মানুষ বড্ড অসহায় 😭😭😭

মানুষের কষ্ট অনুভব করে লিখলাম

ভিডিও টি একবার দেখুন

https://release.sc/video/3765/
সিমেন্ট থেকে ক্রিয়েটিভ ধারণা - আপনার পরিবারের জন্য DIY সুন্দর জলপ্রপাত অ্যাকোয়ারিয়াম আপনারাও তৈরি করতে পারে। এটি তৈরি করতে আপনাকে খুব একটা সময় প্রয়োজন হয়। বিড়ি কত বাইট এর মাধ্যমে আমরা এই জলপ্রপাতটি তৈরি করতে পারি। এটি তৈরি করতে প্রথমে আমাদের বিভিন্ন ধরনের নিউজ একই সাইজের প্রয়োজন হবে। এটি দিয়ে সুন্দর ভাবে কল করে এবং এদের নিয়ে একটি চৌকাট তৈরি করতে হবে । এই চৌকাঠে ভিতরে বিভিন্ন ধরনের পাথর বিভিন্ন ধরনের ফুল শাপলা ইত্যাদি দিয়ে জমা করতে হবে। ছবিটা দেখতে পাচ্ছি ছোট ছোট বাড়িতে আর ভিতরে লাইটিং করা হয়েছে। জলের ভিতর আমরা বিভিন্ন ধরনের গাছপালা ইত্যাদি দেখতে পাচ্ছি । জলের ডান সাইটে বিভিন্ন ধরনের কচু গাছ সাজানো হয়েছে। টপ আকারে তৈরি করা হয়েছে বিভিন্ন ধরনের খোপ । এই খবর ভিতরে পানিতে একটার পর একটা ভিতরে চলে আসছে। এটি আমার কাছে খুবই চমৎকার ও মনোমুগ্ধকর দৃশ্য ।
গিটারের মতো আশ্চর্যজনক অ্যাকোয়ারিয়াম জলপ্রপাত সম্পর্কে আপনি কী ভাবেন? গিটার দিয়ে আমরা তো শুধু গানই করি। এই গিটার দিয়ে আমরা একটু জলপ্রপাত তৈরি করতে পারো। জলপরী দেখতে অনেক সুন্দর এবং চমৎকার আমার কাছে বেশি ভালো লেগেছে। আশ্চর্যজনক হলেও সত্য গিটার দিয়ে আমরা সুন্দর একটি মনোরম পরিবেশে জলপ্রপাত তৈরি করতে পারে। বাড়িতে ভাঙ্গা গিটার দিয়ে তার ওপর শাড়ি সাইট দিয়ে সিমেন্ট এবং মসলা তৈরি করে একটি গিটার তৈরি করা হয় ‌। গিটারের বিভিন্ন ধরনের রং করে । গিটার টির ভিতরে বিভিন্ন ধরনের শ্যাওলা দিয়ে পানি ভরাট করে দিয়েছে। গিটারের গিটারের ডান্ডার উপরের দিক থেকে ঝরনার মতো হালকা পানি স্রোত দেখা যাচ্ছে। গিটার খুবই চমৎকার এবং খুবই ভালো লেগেছে।
যারা বাংলাদেশ ঘুরতে আসবেন। তারা সকলে আমাদের দেশের এই বিরানি খাবেন। মাত্র 150 ইয়েন জাপানিরা এই খাবারটি পাবেন। আমাদের দেশে সাধারণত আমরা বিভিন্ন অনুষ্ঠানে কাচ্চি বিরানি খাওয়ার খেয়ে থাকি। এই খাবারটি অনেকেই পছন্দ করে থাকেন। আমাদের দেশে বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে বিভিন্ন রকমের কাচ্চি বিরানী রান্না করা। একশ থেকে দেড়শ টাকার আমরা এই খাবারটি পেয়ে থাকে। বিভিন্ন ধরনের বিরানি আমরা দেখতে পাই। বিভিন্ন ধরনের মাংস ব্যবহার করা হয়। ক্রেতাদের চাহিদা অনুযায়ী তাদেরকে বিভিন্ন ধরনের মাংস দেওয়া হয়। সাধারণত মুরগির গোশত হাঁসের গোশত গরুর গোশত ইত্যাদি বিরানি পাওয়া যায়। ছোট থেকে বড় সকল ধরনের দোকানেই পাওয়া যায়। আমার কাছে ছোট হোটেলগুলোর খাবার খুবই ভালো লাগে।
26 মার্চ স্বাধীনতা উদযাপনের জন্য একটি ছোট বাচ্চা একটি সাইকেলে করে বাংলাদেশের একটি পতাকা নিয়ে বাংলাদেশের বিভিন্ন গ্রাম অঞ্চলের ঘুরে বেড়াচ্ছে । এই পতাকায় বাংলাদেশের মানচিত্র খচিত চিহ্ন দেওয়া হয়েছে ‌। 26 শে মার্চ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস উদযাপন করা হয় ‌। ছেলেমেয়েরা শিক্ষকদের কথা অনুযায়ী বিভিন্ন প্রকার বাড়ি থেকে তৈরি করে নিয়ে যাও। এই ছবিটি তোলা হয়েছে একটি স্থানীয় স্কুলের মাঠ থেকে। বাচ্চাটি বাংলাদেশ ইতিহাস সম্পর্কে ভালোভাবে না জানলে ও প্রতিবাদ 26 শে মার্চ এই দিনে এই দিবসটি উদযাপনের জন্য ছেলেমেয়েরা স্কুলে এসে থাকে ‌।
বন্ধুত্ব এমন একটি সম্পর্ক যা কখনো ভোলা যায়না। জীবনের প্রতিটি মুহূর্তে গুরুত্ব সবারই কাছে একেক রকম হয়ে থাকে। 
পরিবেশের সঙ্গে চলার সময় বিভিন্ন ব্যক্তির সহযোগিতা প্রয়োজন হয়। সামাজিক জীবনে মানুষকে বেঁচে থাকার জন্য একে অপরের প্রতি নির্ভরশীল হতে হয়। ছবিটিতে আপনারা অনেক লোককে দেখতে পাচ্ছেন। স্কুল কলেজ লাইফে শহরে বিভিন্ন পরিবেশে ছেলেদের সঙ্গে পড়ালেখা করেন। 
আরে পড়া লেখার মধ্য দিয়ে এক এক রকম পরিবেশের ছেলেদের সঙ্গে গড়ে উঠে বন্ধুত্ব সম্পর্ক। আর একজন বন্ধু আর একজন বন্ধুর প্রতিদিন বিভিন্ন আচার আচরণ লক্ষ্য করতে চাই। ছবিটিতে একজন বন্ধু আর স্মার্টফোনটি একটা ছবি তুলছে। 
ছবিটিতে তার অন্য বন্ধুরা তার স্মার্টফোনের দিকে লক্ষ্য করে সুন্দর দৃষ্টি অবলম্বন করছে। শক্তি ছবিটিতে একটি অসাধারন মুহুর্ত দেখা যাচ্ছে।
ছবিটিতে আমরা একটি জনসমাবেশ দেখতে পাচ্ছি। ছবির ভিতরে লক্ষ্য করলে দেখা যায় একজন ভাই তার একটি ফোন রেখে একটা পিক তুলছেন। হাজার হাজার মানুষ এখানে একটি আন্দোলন নিয়ে উপস্থিত হয়েছে। বিভিন্ন প্রাকৃতিক দৃশ্য এখানে উপস্থাপন করা হয়েছে। যায় এখান দিয়ে একটি কারেন্টের তার গিয়েছে। এবং খুঁটির পাশে বিভিন্ন লাইট ব্যবহার করা হয়েছে। ছবিটার ভিতরে কিছু বেল গাছ দেখা যাচ্ছে। অনেক মানুষ এখানে এসে তাদের ন্যায্য অধিকার আদায়ের জন্য ভিড় করছে। প্রতিষ্ঠান তাদের দাবি নিয়ে এখানে এসেছে। আমি না মানলে তারা এখান থেকে কোথাও যাবেনা। এই পরিবেশটি আমাকে অনেক মনমুগ্ধকর করেছে।এত মানুষ হাজির হবে আমি মোটেও ভাবতে পারিনি। আমাদের দাবি মানতে হবে না মানলে আমরা এখান থেকে কোথাও যাবো না। এমন উদ্যোগ নিয়ে তারা এখানে এ সমাবেশ আয়োজন করেছে।প্রশান্ত প্রকারের রাস্তা দিয়ে গাড়ি সাইকেল ইত্যাদি চলাচল করতে পারছে না।
ছবিটিতে আপনার একটি মনিটর দেখতে পাচ্ছেন। মনিটর চেয়েছে একজন কর্মী তার দোকানে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখছে। জাতে দোকান থেকে কোন জিনিস চুরি করে নিয়ে যাওয়া যেতে পারে সেজন্য একজন কর্মী মনিটরের দিকে সর্বদা লক্ষ্য করছে। এই স্থানটি সাতক্ষীরা আর্টিক টেলিকম মোবাইল কোম্পানি রুম থেকে নেওয়া হচ্ছে। আর কে টেলিকম এখানে বিভিন্ন ধরনের মোবাইল ফোন হেড ফোন চার্জার ইত্যাদি বিক্রয় করা হয়। ক্রেতাগণ এখান থেকে অনেক ধরনের সুবিধা পেয়ে থাকেন। থেকে কোন জিনিস কিনলে অল্প মূল্যে নেওয়া যায়। ধরনের বিভিন্ন কোম্পানির মোবাইল স্যামসাং ওয়াই ইনফিক্স ভিশন আইটেল ইত্যাদি ফোন পাওয়া যায় । একজন কর্মী ক্রেতাদের বিভিন্ন ধরনের আইটেম দেখাও।

ブログ