写真

এই ছবিটি হচ্ছে বালুইগাছা বাইতুল আকসা জামে মসজিদ সাদ ঢালাই করা জন্য মেশিন এবং অনেক মানুষ এক স্থানে  আছে। এই যে মানুষ গুলো দেখতে পাচ্ছে । এখানে এই ছবিতে মানুষ ছাড়া আরো অনেক জিনিস দেখা জাচ্ছেন যেমন খ ঢালাই মেশিন এবং মানুষ। এবং ছবিতে দেখতে পাচ্ছে যে মসজিদের মাইক এবং খাওয়া জন্য কয়েটি থালে জিলাপি রাখা আছে। এই জিলাপি গুলো হচ্ছে ডালাই উদ্ধোদন করা করা অতিথিদের জন্য রাখা আছে। এই যে লোকজন দেখা জাচ্ছে এই লোক গুলো বালুই গাছা গ্রামের লোকজন  । এই ছবিটি মসজিদের ছাদ ঢালাই দিন এই ছবিটি তোলা হয়েছে। এই অনেক গুলো মানুষ এবং ঢালাই দেওয়ার সব জিনিস এই সব মিলে এই ছবিটি অনেক সুন্দর। এই ছবিটি আমি আমার মোবাইল থেকে এই ছবিটি তুলছি। এই সুন্দর এই ছবিটি আমি এখন রিলিজে পোস্ট করছি এই ছবিটি যদি আপনাদের কাছে ভালো লেগে তাহলে লাইক কমেন্ট করবেন।
এই ছবিটি হচ্ছে একটি রাস্তার ছবি এই ছবিটি তোলা হয়েছে সাতক্ষীরা টু আশাসনি এর মধ্যেবতি স্থান  ধুলিহর ব্রহ্মরাজপুর বাজারের পাসে চিলারডাঙ্গা মোড় থেকে এই ছবিটি তোলা হয়েছে । এই ছবিতে যে রাস্তা টি দেখতে অনেক সুন্দর একটি রাস্তা। এই রাস্তা টি হচ্ছে একটি পিচি রাস্তা। এই রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন  হাজার হাজার গাড়ি চলাচল করে। এই ছবিতে রাস্তা ছাড়া আরো কিছু জিনিস দেখা জাচ্ছে যেমন ইজিবাইক ভ‍্যান। এবং রাস্তা পারে গাছের গুরি কাটা দেখা জাচ্ছে। এবং এই সুন্দর সবুজ সিসু গাছ ও দেখা জাচ্ছে এই ছবিতে । এই সব মিলে ছবিটি অনেক সুন্দর একটি ছবি। এই ছবিটি আজ দুপুর চাঁদপুর মসজিদে নামাজ পরাতে যাওয়া সময় মোটরসাইকেলে উপর থেকে তুলছি।  এই সুন্দর ছবিটি এখন আমি রিলিজে পোস্ট করছি। এই ছবিটি যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে লাইক কমেন্ট করবেন।
এই ছবিটি হচ্ছে একটি ইট ভাঙ্গা গাড়ির ছবি। এই ছবিতে দেখা জাচ্ছে যে একটি গাড়ি কিছু লোক ইট ভাঙ্গছে এবং গাড়ির পাসে দাড়িয়ে কিছু লোক দেখছে। এই ছবিটি তোলা হয়েছে সাতক্ষীরা ধুলিহর বালুইগাছা মসজিদে সাদ নির্মাণ করা জন্য ইট ভাঙ্গছে তার ছবি। এই ইট ভাঙ্গা হয় তার কারন এই ইট গুলো বড় বড় থাকে তাই তা মেশিন দিয়ে ভেঙ্গে ছোট ছোট খ তে পরিনত করা হয় এই মেশিনে। এই ছবিতে দেখা জাচ্ছে একজন লোক মেশিন ইট দিচ্ছে এবং একজন লোক মাথাই করে খ অন্য জায়গাই রাখছে। এই ছবিতে যে সাদ নির্মাণ করা জন্য খ ভাঙ্গছে সে সাদ সেন্টারিং ও দেখা জাচ্ছে এবং কিছু গাছপালা ও দেখা জাচ্ছে। এবং মসজিদে মাইক ও দেখা জাচ্ছে। এবং দেখা জাচ্ছে যে সাদে উঠার জন্য একটি কাঁঠের  সিড়ি ও দেখা জাচ্ছে। এই সব মিলে ছবিটি অনেক সুন্দর।
এখন যে ছবিটি পোস্ট করছি এই ছবিটি হচ্ছে একটি রাস্তার পাসে একটি বাড়ি ছবি এই ছবিতে দেখা জাচ্ছে যে একটি বাড়ি যা ছাউনি এক পাসে  করা হয়েছে এলব‍‍্যাস্টার দিয়ে। এবং  আর এক পাসে সাদ দেওেয়া আছে। এবং দেখা জাচ্ছে যে সাদের উপর পানি জমা রাখার জন্য একটি পাত্রো আছে এটি পাত্র নাম হচ্ছে পানির টেঙ্কি।  এই পাত্রে পানি জমা রাখা হয়। এবং এই ছবিটিতে বাড়ির পাসে আর একটি জিনিস দেখা জাচ্ছে সেটি হচ্ছে একটি কারেন্টের পোল। যার মাধ্যমে ঘরবাড়ি তে বিদ‍্যুৎ সরবারহ করা হয়। এই সব মিলে এই ছবিটি অনেক সুন্দর একটি ছবি। এই ছবি নলতাই যাওয়ার পথে গাড়িড় ভিতরে বসে তুলছি। এই যে বাড়িটি আপনার দেখতে পাচ্ছে এই বাড়িতে একটি হচ্ছে একটি গরুর ফার্ম এখানে গরু পুসা হয়। এই ছবিটি যদি আপনাদের কাছে ভালো লাগে তাহলে লাইক এবং কমেন্ট করবেন।
এখন আমি যে ছবি আপনাদের মাঝে পোস্ট করছি এই ছবিটি হচ্ছে একটি সাদ বানানো সময় ছবি। এই ছবি দেখা যাচ্ছে যে কিছু লোক রড় বাধছে সাদ দেওয়ার জন্য। এই ঘরবাড়ি সাদ দিতে হলে অনেক ধরনের জিনিস দরকার হয়। এবং ঘরবাড়ি ছাদ দেওয়া হয় বসবাস করা জন্য। এই ছবিতে কিছু লোক রড় বাধছে এবং একটি লোক তাদের কাছে রড় বান্ধা তার পোছিয়ে দিচ্ছে। এবং এই রড় বাধছে সাদ ঢালাই দেওয়ার জন্য । এই ছবিতে যে সাদ টি দেখতে পাচ্ছে এই হচ্ছে একটি বসত বাড়ি সাদ।  একটি ছবিতে সাদ বানধা আড়া আরো জিনিস দেখা জাচ্ছে যেমন এই বিল্ডিং সাদের পাসে সুন্দর সুন্দর সবুজ গাছের এবং ঘরবাড়ি ছাওয়া দেখা জাচ্ছে। এই ছবিটি অনেক সুন্দর একটি ছবি।
এখন আমি যে ছবিটি পোস্ট করছি এই ছবিটি হচ্ছে একটি মসজিদ সাদ নির্মাণ করা ছবি। এই মসজিদ স্থান হচ্ছে সাতক্ষীরা ধুলিহর বালুই গাছা। এই মসজিদ ম হচ্ছে বালুইগাছা বাইতুল আকসা জামে মসজিদ। এই ছবি গুলো তে দেখা জাচ্ছে যে মসজিদের ছাদ তৈরি করা জন্য বাঁশ এবং তক্তা মারা আছে এবং তক্তা উপর কিছু জন রড়ের খাচা বাধছে। বিমের ভেতরে দেওয়া জন্য। আমাদের দেশে মানুষ ছাদ তৈরি করে ব‍্যবহার করে অনেক জিনিস যেমন বাঁশ তক্তা প্রেক রড় বালু সিমেন্ট খ তার ইত্যাদি। এই সব দিয়ে ছাদ তৈরি করা হয় । এই মসজিদ টি নির্মাণ করা করন আগের মসজিদ পুরাতন হয়ে যাওয়া করনে নতুন তৈরি করা হচ্ছে। এই ছবি গুলোতে মসজিদের পাসে অনেক সুন্দর সবুজ গাছপালা দেখা জাচ্ছে। এই মসজিদ হচ্ছে আল্লাহ ঘর যেখানে মুসলিমরা নামাজ পরে থাকে। এই ছবিটি যদি আপনাদের কাছে ভালো লেগে থাকে তাহলে লাইক এবং কমেন্ট  করবেন।
প্রকৃতি যে দেখতে কতটা সুন্দর তা এই ছবিতে দেখা জাচ্ছে ছবিতে একটি ধানের খেত এবং একটি কলা গাছ   দেখা জাচ্ছে। এই ছবিটি আজ বিকালে বিলে খুরতে গিয়ে এই ছবিটি তুলছি। এই ছবিতে দেখা জাচ্ছে এক  জায়গাই কিছু কলাগাছ এবং এই গাছগুলো মধ্যে একটি গাছে একটি কলার মুচা বের হয়েছে। এবং এই গাছগুলো সব ধানখেতের আলি উপর লাগানো আছে। এই প্রকৃতির সুন্দর একটি ছবি আমি এখন আপনাদের কাছে পোস্ট করছি। এই ছবি দেখা জাচ্ছে যে ধান খেতে ধানে সব সিস বের হয়েছে । এবং এই ছবিতে আমাদের গ্রামে একটি ধান খেতের ছবি। এবং এই ধান খেতটি একটি খেজুর বাগানের পাসে। এই ছবিতে কিছু খেজুর গাছ ও দেখা জাচ্ছে। এই প্রকৃতির সবুজ ভরা এই ছবিটি দেখতে অনেক সুন্দর।
এখানে আমি চারটি রাস্তার ছবি পোস্ট করছি এর মধ্যে তিনটি রাস্তা  হচ্ছে শহরের এবং একটি হচ্ছে গ্রামের রাস্তা। এই রাস্তা গুলো সব সাতক্ষীরা গাজিরহাট থেকে তুলছি। এখানে এই শহরে রাস্তা গুলো তে দেখা বিভিন্ন ধরনের গাড়ি যেমন ট্রাক ইজিবাইক ইজ্ঞিন ভ্যান এবং ট্রাকটার টলি ইত্যাদি। এই শহরের এবং গ্রামের রাস্তা মধ্যে পার্থক্য হচ্ছে শহরের রাস্তা গুলো সব জনগোন দিয়ে ভর্তি এবং গ্রামের রাস্তা কোনো লোকজন নেই। এই ছবি গুলোতে তা  দেখা জাচ্ছে। এই ছবিতে আরো দেখা জাচ্ছে যে রাস্তার দুই ধার দিয়ে সব গাছপালা ভর্তি। এবং এই ছবি গুলো যে রাস্তা গুলো দেখতে পাচ্ছে এই রাস্তা গুলো সব পাকা রাস্তা। এই ছবি গুলো সব আমি আমার মোবাইল থেকে তুলছি ছবি গুলো যদি আপনাদের কাছে ভালো লাগে তাহলে লাইক এবং কমেন্ট করবে ।
শহীদ মিনার এমন একটি জায়গা যেখানে  21 ফেব্রুয়ারি ফুল দিয়ে শহীদ  দের সরন করা হয়।  তাই আমি একটি শহীদ মিনার এবং পাসে একটি সিড়ি এবং পাসে একটি দোকান ছবি পোস্ট করছি।  এই ছবিটি ভারোখালি সরকারি প্রথামিক বিদ্যালয় স্কুল মাঠ থেকে ছবিটি তুলছি।  এই শহীদ মিনারটি পাকা করা হয়েছে। এবং এই শহীদ মিনারটি সব জায়গায় টাইস দিয়ে গাতা হয়েছে । এই শহীদ মিনারটি তে চারটি রং টাইস  ব্যবহার করা হয়েছে  যেমন লাল নীল সাদা এবং কালো। এই শহীদ মিনার টি একটি রাস্তার ধারে অবস্থিত। এই শহীদ মিনার পাসে একটি বিল্ডিং আছে এবং এই বিল্ডিংটি দুই তালা বিষ্টিত এর বিল্ডিং টিতে নিচে থেকে উপরে উঠার জন্য  লুহার সিড়ি তৈরি করা আছে। এবং এই বিল্ডিংটি নিচের তালাই দোকান আছে মুদির দোকান। এবং এই দোকানটি সামনে এই শহীদ মিনার অবস্থিত। এই শহীদ হচ্ছে যারা 1971 সাথে দেশের জন্য শহীদ হয়েছে  তাদের সরনে একটি দিন বাঙালি পালন করে থাকে সেটি হচ্ছে 21 ফেব্রুয়ারি এই দিনে শহীদ সরনে জন্য মানুষ এই শহীদ মিনারে ফুল দেয় শহীদ জন্য । এই শহীদ মিরা ভাড়োখালি স্কুল মাঠে অবস্থিত। এই ছবিতে দেখা জাচ্ছে যে শহীদ মিনারে তিনটি ফ্লিয়ার লম্বা করা আছে এবং এই প্লিয়ারের মাধ্য স্থানে লাল রং গোল করা আছে। এই সব মিলে এই ছবিটি অনেক সুন্দর একটি ছবি।
এই ছবিটি হচ্ছে একটি দোকান ছবি। এই ছবিতে অনেক ধরনের খাবার এবং একটি  খাবার মোটরসাইকেল ইত্যাদি। এই দোকানটি অনেক ধরনের খাবার দেখা জাচ্ছে যেমন চিপস আইসক্রিম ইত্যাদি। এই চিপস হচ্ছে একটি মুখোরচক খাবার যা সবাই খেতে পছন্দ করে। এখানে এই ছবি এই চিপস গুলো সব পেকেট করা আছে। এবং এই দোকান সামনে একটি পালসার মোটর সাইকেল দেখা জাচ্ছে। এই গাড়িটি দেখতে অনেক সুন্দর একটি গাড়ি। এই গাড়িটি কালার হচ্ছে কালো এবং লাল। এবং এই ছবিতে যে আইসক্রিম বাঁকশো টি দেখা জাচ্ছে। এই বাঁকশে বিভিন্ন ধরনের দামি আইসক্রিম  রাখা হয়ে। এই বাঁকশটি বলা হয় ফ্রিজ যা মাধ্যমে আইসক্রিম ঠান্ডা রাখা হয়। এবং ছবি তোলা হয়েছে এবং রাস্তা ধারে কিছু দোকান পাস থেকে । এই দোকান টি তে দামি দামি আইসক্রিম পাওয়া জায়। এবং এই ছবিতে দেখা জাচ্ছে যে দোকান টি সামনে একটি সাইকেল রাখা আছে এবং দেখা জাচ্ছে যে দোকান সামনে দুইটি টুল  রাখা আছে মানুষের বসার জন্য। এবং এই দোকানটি সামনে টিনের চাল দেওয়া আছে বৃষ্টি থেকে দোকানকে বাচানো জন্য।
বাংলাদেশ কৃষি প্রধান দেশ এ দেশের বেশির ভাগ মানুষ কৃষির উপর নির্ভাশীল। আই আমি একটি ধানের খেতে একটি ছবি আমি এখন পোস্ট করছি। এই ছবিতে দেখা জাচ্ছে যে একটি বড় ধানের খেত। এবং কিছু কলাগাছ আলির উপর। এই সবুজ ভরা ধানৃর খেতটি দেখতে অনেক সুন্দর লাকছে। এই বাংলাদেশ কৃষি বেশি ভাগ আয় আসে ধান থেকে। এবং এদেশের ষাট % লোক কৃষি উপর নির্ভিশীল। এখানে যে ধানের খেতটি দেখতে পাচ্ছে এই ধানগাছ এখোনো ছোট। এতে এখোনো ঠলোন দেইনী। এই সবুজ ভরা ধানের খেতটি ছবি তোলা হয়েছে ধুলিহর বালুই গাছা থেকে। এই ধান আমাদের দেশে বছরে দুই বার লাগানো হয়। এই ধানের খেতের ছবি আমি আমার মোবাইল থেকে তুলছি। এই সবুজ ভরা ধানের খেতের যদি আপনাদের কাছে ভালো লাগে তাহলে লাইক এবং কমেন্ট করবেন।
এই ছবিটি যে আপনারা দেখতে পাচ্ছেন এই ছবিটি তোলা হয়েছে চিটাগাং বন্দরে পাসে একটি রাস্তার উপর থেকে। এখানে দেখা জাচ্ছে যে কিছু মানুষ এক জায়গায় বসে আছে এবং একজন লোক রান্না করার জন্য হাড়ি পরিস্কার করছে এবং একটি পাত্রে গরু মাংস রাখা আছে। এই ছবি গুলো চিটাগাং মামার ট্রাকে ঘুরতে গিয়ে এই ছবিটি তোলা হয়েছে । এখানে যে লোকটি হাড়ি পরিস্কার করছে এটা হচ্ছে আমার মামা। এই রান্না টি করার কারন হচ্ছে রাস্তায় গাড়ি জাম থাকার করনে। গাড়ি রেখে রাস্তার উপরে চুলাই রান্না করা হচ্ছে। এবং যে স্থান টি তে রান্না করছে তার চারিপাসে ট্রাক লাইন দিয়ে সাজানো আছে। এই সব ছবি গুলো চিটাগাং থেকে তুলছি। এই ছবি অনেক সুন্দর লাকছে।
ট্রাক একটি মালবাহী গাড়ি যাতে  মালামাল নিয়ে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে যাই। এখানে এই ছবি গুলোতে দেখা যাচ্ছে যে ট্রাক লোডিং করার পর তামবু উপরে দিয়ে বাধছে। যাতে যেনো মালামাল নষ্ট বা হরিয়ে না যাই। এই ছবি গুলো সব সাতক্ষীরা জেলার ভূমরা বন্দরে পাসে একটি গোডাউন থেকে পেজ লোড করার পর এই ছবি তোলা হয়েছে। এই ট্রাক টি হচ্ছে ছয় চাকা বিষিষ্ঠ একটি গাড়ি। যা দেখতে অনেক বড় একটি গাড়ি। এবং এই গাড়িতে অনেক গুলো মাল এক সাথে নিয়ে চলা জায়। এখানে এই ছবিতে দেখা জাচ্ছে যে ট্রাকের উপরে দুইজন তামবু দড়ি দিয়ে বাধছে। এবং একজন লোক ট্রাকের পাসে দাড়িয়ে আছে। এবং দেখা জাচ্ছে ট্রাকটি হলুদ এবং নীল  রং করা। এবং এই  ট্রাক একটি গোডাউন ভিতরে লোড করেছে। এবং এই ট্রাক লোডের ছবি রাতে তোলা হয়েছে । এই ছবিতে আরো লাইট ও দেখা জাচ্ছে।
রাস্তা এমন একটি জায়গা যেখানে চলাচল করে। এই ছবিতে দেখা জাচ্ছে যে  একটি রাস্তা রাতের বেলার ছবি।  এই ছবিতে রাস্তায় চলাচল করছে অনেক গুলো গাড়ি। এবং দেখা জাচ্ছে রাস্তায় একটি ট্রাক। এখানে আমি চারটি ছবি পোস্ট করছি। দুইটি তে দেখা জাচ্ছে যে রাস্তায় অনেক গুলো গাড়ি এবং লাইট এবং বিদ্যুৎ তার ইত্যাদি এবং এবং আর দুইটি ছবিতে দেখা জাচ্ছে রাস্তার উপর ট্রাক রাখা আছে। এই ছবি গুলো সব রাতের বেলাই তোলা হয়েছে। এই ছবি গুলো সব সিলেট যাওয়া পথে তোলা হয়েছে। আমি আমার মামার ট্রাকে সিলেট যাওয়া সময় তুলছি। এই ছবি গুলো বিভিন্ন ধরনের লাইটিং দেখা জাচ্ছে।  এই ছবি গুলো তে বিভিন্ন ধরনের গাড়ি দেখা জাচ্ছে যেমন সিএনজি ট্রাক রিকসা ইত্যাদি। এই সব ছবি গুলো সব রাতের বেলাই তুলছি। এই ছবি গুলো যদি আপনাদের কাছে ভালো লাগে তাহলে লাইক কমেন্ট করবেন।
খেলা হচ্ছে এমন একটি জিনিস যা সবাই খেলতে পছন্দ করে। তেমপি একটি খেলার মাঠের ফুটবল প্লেয়ার মাঠে নামার দুইটি ছবি আমি এখন পোস্ট করছি। এই ছবিতে দেখা  জাচ্ছে যে  দুই দলের প্লেয়ারের রা ফুটবল হাতে নিয়ে মাঠে নেমে জাচ্ছে তার করন হচ্ছে এখানে দুই দলের প্লেয়ারেরা খেলা করবে। এই প্লেয়ারের গায়ে ছিলো এক কালারের গেন্জি। দুই দলের খেলোয়াড় গায়ে দুই কালারের গেন্জি ছিলো তার কারণ হচ্ছে যেনা খেলা করার সময় চেনা জায়ে কে কোন দলের প্লেয়ার। এই সব মিলে অনেক সুন্দর দুইটি ছবি আমি পোস্ট করছি। এই ছবিতে আরো দেখা জাচ্ছে মাঠের ধারে দশক দারিয়ে আছে। আরো দেখা জাচ্ছে যে প্লেয়ার সমনে তিন জন কালো পংসাকে হাটছে এরা হচ্ছে আম্পিয়ার। এই সব মিলে এই ছবি গুলো সাতক্ষীরা গাঙ্গিনিয়া ফুটবল মাঠ থেকে তোলা হয়েছে । এই ছবির খেলাটি ছিলো একটি আট দলিও নকআউট ফুটবল খেলা। এই খেলাই দুইটি দলের মাঠের ছবি দেখা জাচ্ছে।
হোটেল হচ্ছে খাবার বেচাকেনা স্থান। যেখানে টাকার বিনিময় খাবার বিক্রয় করা হয়। তেমনি একটি হোটেল এবং পাসে কিছু দোকান ছবি পোস্ট করছি। এই ছবিতে দেখা জাচ্ছে তিনটি জিনিস যেমন ব্যাংক হোটেল এবং মুদির দোকান। এই ছবিটি তোলা হয়েছে সাতক্ষীরা থেকে দূরে নলতা থেকে। এই ছবিতে দেখা জাচ্ছে যে হোটেল সামনে একটি বেক্তি চুলাই মুংলাই ভাচ্ছে। এবং দেখা জাচ্ছে যে হোটেল সামনে গ্লাচের ভিতরে অনেক গুলো মিস্টি রাখা আছে। এই গ্লাচের ভিতরে রাখার কারন হচ্ছে মিস্টি গুলো মাছি এবং ধূলাবালি হাত থেকে রখা করার জন্য । এবং এই হোটেল পাসে দেখা জাচ্ছে একটি বিল্ডিং এই বিল্ডিং হচ্ছে একটি ব্যাংক তার কারন হচ্ছে। ঐই বিল্ডিং উপরে ব্যাংক নাম লেখা আছে। এবং তার পাসে তাকালে দেখতে পাবেন যে একটি মুদির দোকান আছে এই দোকানটিতে অনেক গুলো চিপস দেখা  জাচ্ছে। এবং এই ছবিতে আরো তাকালে দেখতে পাবেন যে এই সব মধ্যে খানে একটি কারেন্ট খুটি আছে। এবং এই বিল্ডিং উপরের তালাই ব্যাংক টি অবস্থিত এবং নিচের তালাই দোকান আছে। এই ছবিটি তোলা হয়েছে রাতে।
রাস্তা এমন একটি জায়গা যেখানে মানুষ চলাফেরা এবং মালামাল আদান প্রদান করা জন্য গাড়ি চলাচল করে থাকে। তে একটি রাস্তা এবং রাস্তা পাসে দোকান পাটের ছবি আমি এখন পোস্ট করছি। এই ছবিতে দেখা জাচ্ছে যে একটি রাস্তা পূর্ণ নির্মাণ করা জন্য রাস্তা টি খুচেছে এবং দেখা জাচ্ছে যে রাস্তা আরো বড় করার জন্য রাস্তার পাসের দোকান গুলো ভাংচুর করছে। এই ছবি গুলো স্থান টি হচ্ছে সাতক্ষীরা থেকে একটু দুরে  ভূমরা এর মধ্যে বর্তি স্থান বাদাম তলার এই ছবি গুলো। এই আলিপুর থেকে ভুমরা পযর্ন্ত এই রাস্তা আরো বড় করছে তার কারন এই রাস্তা দিয়ে ইন্ডিয়া মালামাল আমদানি করা হয় । এই ছবিটি দিকে তাকালে দেখতে পাবেন যে রাস্তা উপর ট্রাক চলাচল করছে। এবং আরো দেখা জাচ্ছে যে একটি cng রাস্তা ধারে আছে। এবং আরো দেখা জাচ্ছে যে মটরসাইকেল এবং সাইকেল। এবং এই ছবি গুলো তে দেখা জাচ্ছে যে দোকান গুলো ভাংচুর করছে। কারন এই রাস্তা টি দুই পাসে আরো বড় করবে বলে ভাংচুর করছে। এই ছবি গুলো সব বাদামতলা থেকে। এই ছবি গুলো সব অনেক সুন্দর সুন্দর ছবি এই ছবি গুলো সব যদি আপনাদের কাছে ভালো লাগে তাহলে লাইক কমেন্ট করবে।
লাইন এক্স. বুখারা. স্পিংগিলিবাস. রেসিং হুমার. সিরাজী লাহরি. এই নাম গুলো হচ্ছে পাঁচ প্রজাতির কবুতর নাম।  এই কবুতর গুলো অনেক সুন্দর একটি প্রাণী। এই কবুতর গুলো সব খাচাই পোসা হচ্ছে। এই ছবি গুলো পাচাঁটি কবুতর দেখা জাচ্ছে এই কবুতর গুলো দাম এক এক রকম। এই কবুতর গুলো সব আমার বাড়িতে খাচাই পোসা হয়েছে । এই কবুতর গুলো দাম এক হাজার থেকে পাঁচ হাজার টাকা পযর্ন্ত। এই কবুতর গুলো দেখতে অনেক সুন্দর এবং এই কবুতর প্রাণী গুলো খাঁচাই  বন্ধি আছে। এই কবুতর গুলো খাবার হিসেবে দিতে হয়  গম সরিসা ভূট্টা খেসারি মুসুরি বুট রাবিস এবং পানি ইত্যাদি এগুলো দেওয়া হয় । এই কবুতর গুলো হচ্ছে অনেক সখের কবুতর। এই কবুতর গুলো সবাই পুসতে পারে না। এই যে কবুতর গুলো দেখতে পাচ্ছেন এই কবুতর গুলো গায়ের কালার এক এক রকম।

動画

Spark video of data stove fire.
00:12
A video while fishing around.
HD 00:28
Make this video while boating.
HD 00:15