写真

দাবানলে বিপর্যস্ত অস্ট্রেলিয়ার পূর্বাঞ্চলের কিছু অংশে বৃহস্পতিবার(১৬ জানুয়ারি) ভারী বৃষ্টিপাত হয়েছে। এছাড়া সামনের দিনগুলোতে আরো বৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। বেশ কয়েকমাস ধরে দাবানলে বিপর্যস্ত অস্ট্রেলিয়ার মানুষের কাছে এই বৃষ্টি স্বস্তির কারণ হয়ে উঠেছে।

অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্য দাবানলের কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।  বৃহস্পতিবারের এই বৃষ্টির ফলে এই রাজ্যের বেশ কয়েকটি দাবানলের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

নিউ সাউথ ওয়েলসের রুরাল ফায়ার সার্ভিস সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জ্বলন্ত বনের উপর বৃষ্টির পানি পড়ছে এরকম একটি ছবি পোস্ট করে জানায়, রাজ্যেজুড়ে দাবানল নিয়ন্ত্রণে কাজ করা অগ্নিনির্বাপক কর্মীদের জন্য এই বৃষ্টি স্বস্তি নিয়ে এসেছে।  যদিও দাবানলের পুরো আগুন এখনো নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়নি।  তবে ৩০ টির মত আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে।
দাবানলে বিপর্যস্ত অস্ট্রেলিয়ার পূর্বাঞ্চলের কিছু অংশে বৃহস্পতিবার(১৬ জানুয়ারি) ভারী বৃষ্টিপাত হয়েছে। এছাড়া সামনের দিনগুলোতে আরো বৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। বেশ কয়েকমাস ধরে দাবানলে বিপর্যস্ত অস্ট্রেলিয়ার মানুষের কাছে এই বৃষ্টি স্বস্তির কারণ হয়ে উঠেছে।

অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্য দাবানলের কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।  বৃহস্পতিবারের এই বৃষ্টির ফলে এই রাজ্যের বেশ কয়েকটি দাবানলের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

নিউ সাউথ ওয়েলসের রুরাল ফায়ার সার্ভিস সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জ্বলন্ত বনের উপর বৃষ্টির পানি পড়ছে এরকম একটি ছবি পোস্ট করে জানায়, রাজ্যেজুড়ে দাবানল নিয়ন্ত্রণে কাজ করা অগ্নিনির্বাপক কর্মীদের জন্য এই বৃষ্টি স্বস্তি নিয়ে এসেছে।  যদিও দাবানলের পুরো আগুন এখনো নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়নি।  তবে ৩০ টির মত আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে।
ডা. সাবরিনা জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটের চিকিৎসক। পুলিশ বলছে, সাবরিনা জেকেজির চেয়ারম্যান। তবে সাবরিনা নিজেকে জেকেজির ‘চেয়ারম্যান নয়’ বরং প্রতিষ্ঠানটির ‘কোভিড-১৯ বিষয়ক পরামর্শক’ দাবি করেছেন।

দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, সাবরিনা আরিফের চতুর্থ স্ত্রী। তার প্রথম ও দ্বিতীয় স্ত্রী রাশিয়া ও লন্ডনে থাকেন। তৃতীয় স্ত্রীর সঙ্গে তালাক হয়েছে তার। চতুর্থ স্ত্রী ডা. সাবরিনার কারণেই করোনার নমুনা সংগ্রহের কাজ পায় জেকেজি হেলথকেয়ার। প্রথমে তিতুমীর কলেজ মাঠে স্যাম্পল কালেকশন বুথ স্থাপনের অনুমতি মিললেও প্রভাব খাটিয়ে ঢাকার অন্য এলাকা এবং অনেক জেলা থেকেও নমুনা সংগ্রহ করছিলেন তারা।
মিজানুর রহমান আজহারী ও তারেক মনোয়ার যুদ্ধাপরাধী দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর পক্ষ নিয়ে ওয়াজ মাহফিল করায় সংসদে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে। বিষয়টি উত্থাপন করেছেন সংসদ সদস্য মো. শফিকুর রহমান।

২৩ জানুয়ারি, বৃহস্পতিবার রাতে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনিত ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে মো. শফিকুর রহমান আজহারী ও মনোয়ারের ওয়াজ নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

পরে সভাপতির চেয়ারে বসা ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া বলেন, ‘দেলোয়ার হোসেন সাঈদ নিয়ে যেসব গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য আসছে এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।’

শফিকুর রহমান বলেন, ‘দেলোয়ার হোসেন সাঈদী রাজাকার ছিলেন। আদালতে তার বিচার হয়েছে এবং বিচারে সে শাস্তিও ভোগ করছে। এখন মিজানুর রহমান আজহারী ও তারেক মনোয়ার নামের দুইজন ওয়াজ মাহফিল করে বলছেন, ঘরে ঘরে দেলোয়ার হোসেন সাঈদী বেরিয়ে আসবে। শুধু তাই নয়। এদের মধ্যে একজন বলছে এখন আর তীর ধনুকের যুগ নেই, এখন একে ফোরটি সেভেনের যুগ। এটি প্রচ্ছন্ন নয়, প্রকাশ্যে হুমকি।’
প্রতিরোধের জন্য কোনো ভ্যাকসিন এখনই পাওয়া যাচ্ছে না। আমাদের আরও বেশ কিছু দিন অপেক্ষা করতে হবে এই ভ্যাকসিনের জন্য। এমনটা ধরে নেওয়া যেতে পারে যে, করোনাভাইরাস অন্য আরও বেশ কিছু ভাইরাসের মতোই দীর্ঘ মেয়াদে আমাদের মধ্যে থেকে যাবে।

তাই আমাদের লাইফ স্টাইলেও পরিবর্তন আনতে হবে, কঠোর ভাবে মেনে চলতে হবে স্বাস্থ্যবিধি। আর্থিক মন্দা কাটিয়ে উঠতে বা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সহ সব ধরনের অফিস চালু রাখার জন্য সরকারকেও দীর্ঘ মেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে বলেই আমার মনে হচ্ছে।''

ঘটনা সেদিকেই মোড় নিচ্ছে বলে মনে হচ্ছে মি. সরদার। সরকারকে এখন স্বাস্থ্য খাতে ব্যাপক সংস্কার করতে হবে, যাতে সকল আক্রান্ত মানুষকে উপযুক্ত সেবা দেয়া যায়।
এ সময় ওয়াশিংটনের বাইরে ওয়াল্টার রিড সামরিক হাসপাতাল পরিদর্শন করতে গিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প, যেখানে তিনি আহত সৈনিক এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

''আমি বরাবরই মাস্কের বিরুদ্ধে, কিন্তু আমার মতে, সেটার জন্য একটা নির্দিষ্ট সময় এবং জায়গা রয়েছে,''হোয়াইট হাউজ থেকে বের হওয়ার সময় তিনি বলেন।

এর আগে তিনি বলেছিলেন, তিনি মাস্ক পরবেন না। মাস্ক পরার জন্য ডেমোক্র্যাট প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেনকে নিয়ে তিনি ব্যাঙ্গও করেছেন।

তবে শনিবার তিনি বলেছেন, ''আমি মনে করি, যখন আপনি হাসপাতালে থাকবেন, বিশেষ করে এরকম নির্দিষ্ট অংশে, যখন আপনার অনেক সৈনিক এবং মানুষজনের সঙ্গে কথা বলতে হবে, যাদের কেউ কেউ মাত্রই অপারেশন টেবিল থেকে ফিরেছেন, তখন মাস্ক পরা খুব ভালো একটা ব্যাপার।''

গত সপ্তাহে ফক্স বিজনেস নেটওয়ার্কের সঙ্গে সাক্ষাৎকারের সময় মি. ট্রাম্প বলেছিলেন, ''আমি পুরোপুরি মাস্কের পক্ষে।''

তিনি আরও যোগ করেন যে, মাস্ক পরলেও তাকে দেখতে অনেকটা 'লোন রেঞ্জারের' মতো লাগে। লোন রেঞ্জার হচ্ছেন আমেরিকান কল্পকাহিনীর একজন নায়ক, যিনি তার আদিবাসী আমেরিকান বন্ধু টোনটোর সঙ্গে মিলে পশ্চিমা আমেরিকায় অপরাধীদের বিরুদ্ধে লড়াই করতেন।
ফরিদপুরের গ্রাম-গঞ্জ থেকে হারাতে বসেছে আমাদের শৈশবের দিনগুলো। সেই সঙ্গে কালের বিবর্তনে হারিয়ে যাচ্ছে অনেক গ্রামীণ খেলাধুলাও। এখন সেসব খেলার কথা মনে হলে খেলার সঙ্গীদের কথা মনে পড়ে যায়, মনে পড় শৈশবের হারিয়ে যাওয়া খেলা আর স্মৃতির কথা। আমরা উদাস হয়ে যাই কিছুক্ষণের জন্য হলেও। ‘শৈশব’ শব্দটা শুনলেই কেমন যেন একটা ধূসর গল্পের জগৎ সামনে চলে আসে। নির্ভার, চিন্তাহীন একটা সময়। কত কীই–না করেছি আমরা সে সময়! কত গল্প, কত দুষ্টুমি আর কত খেলা। যাঁরা এখন এই লেখার পাঠক, তাঁদের শৈশবের স্মৃতি এখন বেশ খানিকটা ফিকে হয়ে গেছে। শৈশবের কথা উঠলেই এখন খেলার সঙ্গী, খেলা, খেলার মাঠ আর কত হাজারো রকমের স্মৃতি ভেসে ওঠে মনে। খেলার সঙ্গীরা এখন কে কোথায়, সেটা জানা নেই। কিন্তু খেলার স্মৃতিটুকু রয়ে গেছে। চলুন আরেকটু উসকে তোলা যাক সেই স্মৃতি।
বাগেরহাটে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে বাবা-ছেলে একই দিন মারা গেছেন। এ ছাড়া উপসর্গ নিয়ে জেলার দুই উপজেলাতে মারা গেছেন আরও দুজন।

আজ শনিবার সকালে খুলনা ‘কোভিড হাসপাতালে’ (ডায়াবেটিক হাসপাতাল) চিকিৎসাধীন অবস্থায় পল্লিচিকিৎসক ইয়াদ আলী (৬০) মারা যান। বিকেলে ইয়াদ আলীর ছেলে খানজাহান আলী (২৪) খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।


এর আগে ৬ জুলাই কোভিড-১৯ রোগের উপসর্গ থাকায় ইয়াদ আলীর পুরো পরিবারের নমুনা সংগ্রহ করে স্বাস্থ্য বিভাগ। ৭ জুলাই প্রতিবেদনে ইয়াদ আলীসহ তাঁর পরিবারের চারজনের করোনাভাইরাস পজিটিভ আসে। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ৮ জুলাই সকালে ইয়াদ আলীকে খুলনা কোভিড হাসপাতালে ও তাঁর ছেলেকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ブログ